18/02/2019 , ঢাকা

ঝিনাইদহে যৌতুকের লোভে স্ত্রীকে হত্যা, লাশ গাছে


প্রকাশিত: 18/02/2019 22:52:50| আপডেট:

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামে যৌতুকের লোভে সাথি খাতুন লিপা (২৩) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে সাথির স্বামী বরকত মন্ডল উজ্জল।

এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় মঙ্গলবার রাতে ৪ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা রেকর্ড হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার এজাহার নামীয় আসামি হালিমা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার বাদী ও নিহতের মা ঝিনাইদহ সদর উপজেলার তালতলা হরিপুর গ্রামের সিদ্দিক বিশ্বাসের স্ত্রী জায়েদা খাতুন এজাহারে উল্লেখ করেন, ৫ বছর আগে শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামের মুনছুর মন্ডলের ছেলে বরকত মন্ডল উজ্জলের সাথে মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মেয়েকে প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকার সংসারিক মালামাল দেওয়া হয়। সংসারিক জিনিসপত্র দেওয়ার পরও জামাই উজ্জল, তার মা হালিমা খাতুন, ভগ্নিপতি আরিফ ও বোন পলি খাতুন যৌতুকের জন্য সাথিকে বকাঝকা এমন কি মারপিট করতো। গত সোমবার আসামিরা ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য সাথি খাতুনকে বেদম মারপিট করে। বিকালে সাথি তার ব্যবহৃত মোবাইল থেকে এ খবর জানায়। এরপর থেকে সাথির ফোন বন্ধ হয়ে যায়। রাতেই আসামিরা সাথীকে হত্যার পর তার লাশ বাড়ির পাশে একটি কাঠাল গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সুরাথাল রিপোর্ট তৈরী করার সময় সাথির শরীরে অসংখ্য নির্যাতনের দাগ দেখতে পায়। এরপর থেকে আসামিরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে শৈলকুপা থানার এসআই ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জানান, সাথিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে। লাশের শরীরে অসংখ্য মারের দাগ ছিল। তিনি বলেন এজাহার নামীয় একজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

ঝিনাইদহে বস্তিতে আগুনে পুড়লো ৮ বাড়ি

আগুনে পুড়ে যাওয়া বস্তির একটি ঘরে থাকতেন মহানন্দ নামের এক টায়ার ব্যবসায়ী। তিনি জানান, আমার ঘরে ব্যবসার দুই লাখ টাকা ছিল।

ঝিনাইদহে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

রোববার দুপুরে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক গোলাম আযম এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। দণ্ডিত মাহাবুবুর রহমান বাবু

কালীগঞ্জে মেয়র প্রার্থীর পরিবারের ওপর আওয়ামী লীগের হামলা

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বিজুর মা ও স্ত্রীর ওপর নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা হামলা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

মন্তব্য লিখুন...

Top