21/08/2019 , ঢাকা

দেশের বাজারে প্লাস্টিকের চাল, ধরা পড়লো যেভাবে


প্রকাশিত: 21/08/2019 05:03:38| আপডেট:

গাইবান্দা শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রনি মিয়া। শহরের নতুন বাজার থেকে রোববার বিকালে ৬ কেজি চাল কেনেন তিনি। রাতে বাড়িতে ভাত রান্নার পর খেতে তা বিস্বাদ লাগলে সেই চাল নিয়ে সন্দেহ হলো তার। যেমন ভাবা, তেমনি কাজ। সোমবার সকালে ওই চাল ভাঁজতে গিয়ে সেগুলো পুড়ে গলে ও কুঁচকে গেলে সন্দেহ আরো গাঢ় হয়। এরপর চাল নিয়ে সোজা সদর থানায় হাজির। চালগুলো দেখতে প্লাস্টিক সাদৃশ্য মনে করে পুলিশকে বিষয়টি দেখান রনি মিয়া। পুলিশ ভালো করে পর্যবেক্ষণ করার পর তাদেরও চালগুলো নিয়ে সন্দেহ হয়।

পরে পুলিশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উত্তম কুমার সরকারকে বিষয়টি অবহিত করেন। এরপর সোমবার দুপুরে শহরের নতুন বাজার চালের আড়তে অভিযান পরিচালনা করে ‘নোমান মিয়ার চালের দোকান’ থেকে দেড় বস্তা প্লাস্টিক সাদৃশ্য চাল জব্দ করে পুলিশ। আটক চালের মধ্যে ১৫ কেজি পরীক্ষার জন্য ঢাকায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

ক্রেতা রনি মিয়া জানান, চালগুলো নিয়ে আমার সন্দেহ। পরে কিছু চাল খোলায় আগুনে তা’ দেয়ার সাথে সাথে পুড়ে প্লাস্টিকের আকার ধারণ করে। এরপর সঙ্গে পুলিশের কাছে এই চাল নিয়ে হাজির হই।

সদর থানার ওসি খান মো. শাহরিয়ার জানান, সকালে রনি মিয়া নামের এক ব্যক্তি তার বাড়িতে ভাত রান্না করতে গিয়ে প্লাস্টিক সাদৃশ্য চাল লক্ষ্য করেন। তিনি সেই চাল রান্নায় না চড়ায়ে সেগুলো নিয়ে সদর থানায় হাজির হন।

ওসি জানান, ‘আমরা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করলে তিনি সঙ্গে সঙ্গে এ বিষয়ে অভিযান পরিচালনার নির্দেশ। তার নেতৃত্বে অভিযান পরিচলনা করে ব্যবসায়ী নোমান মিয়ার দোকান থেকে দেড় বস্তা প্লাস্টিক সাদৃশ্য চাল জব্দ করা হয় ।’

​তিনি আরো বলেন, এছাড়াও পুলিশ ওই চালের খোঁজে বাজারের কয়েকটি দোকানে অভিযান চালায়। নোমান মিয়ার দোকান সিলগালা করে দেয়া হয়। তবে তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

ভ্রাম্যমাণ টিমে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাছুম আলীও উপস্থিত ছিলেন।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয়

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আশপাশে যাতে নতুন কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে না উঠে সে বিষয়ে নজরদারি করতে থানা,

শাকিলা ফারজানাসহ ৩৩ জনের বিচার শুরু

মঙ্গলবার আদালতে শাকিলা ফারজানার অনুপস্থিতির কারণে সম্পর্কে তার আইনজীবী আবদুস সাত্তার বলেন,

ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির নতুন কমিটি

অ্যাডভোকেট এসএম মশিয়ার রহমানকে আহবায়ক ও অ্যাডভোকেট এম এ মজিদকে সদস্য সচিব করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন...

Top