14/12/2018 , ঢাকা

‘বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে ’


প্রকাশিত: 14/12/2018 12:27:59| আপডেট:

বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর বিএনপির নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মতিঝিল বিভাগের ডিসি আনোয়ার হোসেন। বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আনোয়ার হোসেন বলেন, পুলিশ শুধু তাদের রাস্তায় থেকে সরে যেতে বলেছিল, যেন যান চলাচল স্বাভাবিক থাকে। কিন্তু তারা এ কথা না শোনে হঠাৎ করে বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর হামলা করে। পরে তারা আমাদের ২টা গাড়ি পুড়িয়ে দেয়। আমাদের কয়েকজন সদস্যও এ ঘটনায় আহত হয়েছে।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত পুলিশ ধৈর্য সহকারে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করছে। এ ঘটনায় কাউকেই এখন পর্যন্ত আটক করা হয়নি। আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি।

ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম জানান, পুলিশের শান্তিপূর্ণ দায়িত্বপালনকালে বিএনপির নেতা-কর্মীরা তাদের ওপর চড়াও হয়, কয়েকটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় আমাদের ১৩ জন আহত হয়ে হাসপাতালে আছে। সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে ইস্যু তৈরির উদ্দেশ্যে তারা এ হামলা করে।

পুলিশ রাষ্ট্রের কর্মচারি। রাস্তায় যানবাহন সুষ্ঠুভাবে চলাচলে তাদের কাজ করতে হয় উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমরা আশা করি, পুলিশকে প্রতিপক্ষ না ভেবে তাদের নিয়মতান্ত্রিক কাজ অব্যাহত রাখতে সহযোগিতা করবেন।

এদিন রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বেলা ১১টার দিকে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে বড় শোডাউন নিয়ে মনোনয়ন ফরম নিতে আসেন ঢাকা-৮ আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস। এ কারণে আশেপাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। যান চলাচল ঠিক করতে ওই শোডাউনে নেতাকর্মীদের নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে দুই কর্মীর ওপর পুলিশ লাঠিচার্জ করে পুলিশ। মূলত তার পর পরই সংঘর্ষ শুরু হয়।

পরে নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে পুলিশকে ধাওয়া করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় ককটেল বিস্ফোরণও ঘটানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশও তাদের পাল্টা ধাওয়া করে লাঠিপেটা করে। নেতাকর্মীদের লক্ষ্য করে টিয়ারশেল ও গুলি ছোঁড়ে পুলিশ। বিএনপির নেতাকর্মীরা এসময় পুলিশের তিনটি গাড়ি ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয়। এ ঘটনায় আহত হন অসংখ্য নেতাকর্মী। আহতদের রাজধানীর কয়েকটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া আহত আরও নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ে আশ্রয় নিয়েছেন। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

পুলিশের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতাকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ছাদে থাকা বাবাকে দেখিয়ে দেওয়া হয়। পরে তিন তলার ছাদে উঠে পুলিশ কফিল উদ্দিনকে সেখান থেকে ফেলে দেয়।

হারুনের নিয়োগে আপত্তি মাহবুব তালুকদারের

আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ নারায়ণগঞ্জের নতুন পুলিশ সুপার (এসপি) হিসেবে নিয়োগে আপত্তি তুলেছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। তার মতে, নির্বাচনের

‘ভিডিও ডিলিট কর, নইলে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেবো’

ট্রেনে যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া তুলছিলেন রেলওয়ে পুলিশের সদস্যরা। এ দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করায় এক যাত্রীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা ও ‘ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো’র হুমকি দেওয়ার

মন্তব্য লিখুন...

Top