22/08/2019 , ঢাকা

শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন


প্রকাশিত: 22/08/2019 17:31:46| আপডেট:

স্টার মেইল, ফরিদপুর: ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (শরীর চর্চা) মো. বেলায়েত হোসেনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও উপজেলার শিক্ষক নেতারা।

বুধবার সকালে কৃষ্ণপুর বাজারে এ কর্মসূচি থেকে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার দাবি জানানো হয়। অন্যথায় আগামীতে উপজেলার সকল বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জনসহ বৃহত্তর কর্মসূচী দেয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষক নেতারা।

কর্মসূচিতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক মো. আয়ুব আলী, জনসংঘ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ. রশিদ খান, কৃষ্ণপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মাওলানা আব্দুল মান্নানসহ অন্যান্য বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন বক্তব্য রাখেন।

আহত শিক্ষক মো. বেলায়েত হোসেন স্টার মেইলকে জানান, মঙ্গলবার বিকালে স্কুল থেকে বাড়ী ফেরার পথে দড়ি কৃষ্ণপুর কমিউটিনি ক্লিনিক সংলগ্ন এলাকায় আকতারুজ্জামান তিতাস গংরা হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে।

এদিকে রাজনীতি দুইভাগে বিভক্ততার জন্য ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তাকে ফাঁসানো হচ্ছে বলে আকতারুজ্জামান তিতাস নিজের সম্পৃক্ততার অভিযোগ অস্বীকার করেন।

এ প্রসঙ্গে সদরপুর থানার সেকেন্ড অফিসার মো. ফরিদুল ইসলাম স্টার মেইলকে জানান, বুধবার দুপুরে আহতের পক্ষে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার পর আইনি প্রক্রিয়া শুরু হযেছে। তিনি জানান, এ ঘটনায় হামলাকারীদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

প্রসঙ্গত, ওই শিক্ষক বর্তমানে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ট্রমা সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হামলার কারণে তার ডান হাত ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া পা সহ শরীরে বিভিন্ন স্থানে তিনি আঘাতপ্রাপ্ত হযেছেন।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয়

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আশপাশে যাতে নতুন কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে না উঠে সে বিষয়ে নজরদারি করতে থানা,

ফাইল ছবি

জাতীয় দিবসগুলো শিক্ষকদের কর্মদিবস হিসেবে গণ্য হোক

প্রশ্ন হচ্ছে, বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে যেহেতু জাতীয় দিবসগুলো যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করতে হয়, তাহলে

শিক্ষকের হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী

অভিযুক্ত শিক্ষক যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন...

Top