22/08/2019 , ঢাকা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ডেঙ্গুমুক্ত রাখতে মন্ত্রণালয়ের ৬ দফা


প্রকাশিত: 22/08/2019 17:50:20| আপডেট:

স্টার মেইল, ঢাকা: আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ডেঙ্গু মুক্ত রাখতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের প্রতি ৬ দফা নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে বলা হয়েছে, পবিত্র ঈদুল আজহার সরকারি ছুটি উপলক্ষে সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১২ দিন বন্ধ থাকবে। স্বাভাবিকভাবেই এ সময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে কেউ থাকবেন না। এ সময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও আশপাশের খেলার মাঠ এবং খোলা জায়গায় বৃষ্টির পানি জমে মশার উৎপত্তি হতে পারে। এতে ডেঙ্গু রোগের বিস্তার হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ঈদের ছুটিতে এডিস মশার প্রজনন রোধে পরিপত্রে বলা হয়েছে, ‘ঈদুল আজহার ছুটির সময় একজন শিক্ষকের নেতৃত্বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা- কর্মচারী, স্কাউট সদস্য, বিএনসিসি এবং শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ছয়জন থেকে ১০ জনের একটি টিম গঠন করতে হবে। এ টিম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং এর আশপাশের যেসব জায়গায় স্বচ্ছ পানি জমার সম্ভাবনা থাকে যেমন ফুলের টব, পানির ট্যাঙ্ক, পানির পাম্প, ফ্রিজ, এসির পানির জায়গা, বাথরুমের পানির বদনা, বালতি, হাইকমোড, আইসক্রিমের বক্স, প্লাস্টিকের বক্স, ডাবের খোসা ইত্যাদি পরিষ্কার করবে।’

পরিপত্রে আরো বলা হয়েছে, ‘বাথরুমের বদনা এবং পানির বালতি উল্টিয়ে রাখতে হবে। হাইকমোডে হারপিক ঢেলে তা বন্ধ করে রাখতে হবে। কোনো জায়গায় জমাটবদ্ধ পানি থাকলে মশার ওষুধ স্প্রে করতে হবে এবং জমাটবদ্ধ পানি নিষ্কাশন করতে হবে।’

আগামী ১২ ও ১৩ আগস্ট ছাড়া অন্যান্য দিনে প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষ খোলা রাখতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের টিমের শিক্ষক- কর্মচারীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে।

ডেঙ্গু প্রতিরোধ কার্যক্রমে সিটি করপোরেশন ও এ সংক্রান্ত টিমে নিয়োজিত শিক্ষক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কেউ ঈদের ছুটিতে গেলে তার স্থলে উপযুক্ত শিক্ষক ও কর্মকর্তা নিয়োজিত করতে হবে।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নতুন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয়

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আশপাশে যাতে নতুন কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে না উঠে সে বিষয়ে নজরদারি করতে থানা,

ফাইল ছবি

জাতীয় দিবসগুলো শিক্ষকদের কর্মদিবস হিসেবে গণ্য হোক

প্রশ্ন হচ্ছে, বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে যেহেতু জাতীয় দিবসগুলো যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করতে হয়, তাহলে

শিক্ষকের হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী

অভিযুক্ত শিক্ষক যৌন হয়রানির কথা স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন...

Top