21/01/2019 , ঢাকা

সাংবাদিক কাফি কামালের ওপর হামলা


প্রকাশিত: 21/01/2019 04:01:26| আপডেট:

রাজধানীর মগবাজারে বিটিসিএল স্কুল ভোট কেন্দ্রের সামনে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে হামলার শিকার হয়েছেন দৈনিক মানবজমিনের সিনিয়র রিপোর্টার কাফি কামাল। রোববার সকাল ৯টার সময় তিনি হামলার শিকার হন। হামলাকারীরা সরকারদলীয় নেতাকর্মী।

কাফি কামাল জানান, সকালে ইস্কাটন গার্ডেন স্কুলে ভোট প্রদান শেষে স্ত্রীকে বাসায় পৌঁছে দিতে অফিসের অটোরিক্সা নিয়ে মধুবাগ ফিরছিলেন তিনি। পথে বিটিসিএল স্কুল ভোট কেন্দ্রের সামনে দুইটি ছেলেকে পেটাচ্ছিলেন কয়েকজন। এ দৃশ্য দেখে তিনি অটোরিক্সা থামিয়ে পেশাগত দায়িত্বের অংশ হিসেবে কয়েকটি ছবি তুলেন। পরমুহুর্তে হঠাৎ করেই কয়েকজন যুবক তাকে ঘিরে ধরে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। এ সময় তিনি বারবার সাংবাদিক পরিচয় দিলেও হামলাকারীদের হাত থেকে রেহাই পাননি। হামলাকারীরা কাফি কামালের হাত থেকে তার আইফোনটিও ছিনিয়ে নেয়।

হামলাকারীরা মারতে মারতে এক পর্যায়ে তাকে টেনে হিঁচড়ে টিএ্যান্ডটি কলোনিতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় মেহেদী আজাদ মাসুমসহ কয়েকজন সাংবাদিক কেন্দ্রের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় এ দৃশ্য দেখে কাফি কামালকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। হামলাকারীদের আঘাতে কাফি কামালের বাম চোখের ওপরে কেটে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় কাফি কামালকে মগবাজার ঢাকা কমিউিনিটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা ক্ষত স্থানে চারটি সেলাই দেন। হামলাকারীরা সাংবাদিক পরিচয় জানার পরও তার ফোনটি ফেরত দেয়নি।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

ডুমুরিয়ায় পর্যবেক্ষকের কার্ড না পাওয়ায় সাংবাদিকদের ক্ষোভ

খুলনার ডুমুরিয়ায় প্রশাসনের 'পছন্দের' ১১ জনকে পর্যবেক্ষকের কার্ড দিয়ে বাকিদের না দেওয়ায় সাংবাদিকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার সকালে

সাংবাদিকদের ওপর ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলা

গণমাধ্যমকর্মীদের অবস্থানরত হোটেলে ব্যাপক হামলা-ভাঙচুর চালিয়েছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা। হামলায় প্রায় ১০-১২ জন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। সোমবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে নবাবগঞ্জের

ঝিনাইদহে দুই সাংবাদিকের নামে মামলা

বাদি আক্তার হোসেন বলছেন, ‘আমার কাছ থেকে থানার লোকজন সাদাকাগজে স্বাক্ষর করে নিয়ে গেছে। আমি সাংবাদিকদের চিনিও না।’

মন্তব্য লিখুন...

Top