25/05/2019 , ঢাকা

‘সাকিব ভাই খোঁজ নিয়েছেন, মুস্তাফিজ দিয়েছেন টাকা’


প্রকাশিত: 25/05/2019 13:47:09| আপডেট:

‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না ও বন্ধু…’, ভূপেন হাজারিকা জীবনমুখী গানের অংশ এটি। মানুষের বিপদের সময় পাশে থেকে সহযোগিতা করাই মানুষের ধর্ম হওয়া উচিত, একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে।

চিকিৎসার অভাবে রাজশাহীর নগরীর দরগাপাড়া এলাকায় বিছানায় পড়ে থাকা জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের সদস্য চামেলী খাতুন অর্থ ও সহানুভূতির জন্য আট বছর ধরে দিনের পর দিন চোখের জল গড়িয়েছেন। এমনই সময়ে দেশের বিভিন্ন মিডিয়ায় তার চিকিৎসার জন্য অর্থ সহযোগিতা ও সহানুভূতির প্রতিবেদন ছাপা হয়।

তারপর থেকে জাতীয় ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও বোলার মুস্তাফিজুর রহমান, তার কোচ, জাতীয় নারী দলের খেলোয়াড়সহ দেশ-বিদেশের অনেক মানুষ আর্থিক সহায়তার আশ্বাস ও সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন। সুস্থ হয়ে ওঠার আশায় সবার কাছে দোয়া ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন চামেলী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চামেলী খাতুন বলেন, সাকিব আল হাসান ভাই আমাকে ফোন করে খোঁজ-খবর নিয়েছেন। পরে আবারও যোগাযোগ করবেন বলেছেন। আর মুস্তাফিজুর রহমান ১০ হাজার, ফাহিম স্যার ও আমার সর্তীর্থ নারী দলের সদস্যরা এক সাথে ৫০ হাজার, কোচ দীপু রায় চৌধুরী ও এহেসান স্যার একসাথে ১৯ হাজার টাকা, চ্যানেল টোয়েন্টিফোর ১০ হাজার টাকা আজকে (মঙ্গলবার) আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। এ ছাড়াও আমাকে স্থানীয় অনেকে বাড়িতে এসে কিংবা বাহির থেকে মুঠোফোনে বিভিন্ন ব্যক্তি সহানুভূতি জানিয়েছেন। আর আমার কর্মস্থল আনসার ভিভিডিপি থেকেও বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছেন।

ক্রিকেট বোর্ড থেকে কেউ যোগাযোগ করেছেন কিনা জানতে চাইলে চামেলী বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে সিইও আমাকে ফোন দিয়ে বলেছেন তুমি ঢাকায় এসো। তোমার চেকাপ করা হবে। ওনার (সিইও) কথা শুনে আমি খুব মর্মাহত হয়েছি। কারণ, তিনি সহানুভূতি না জানিয়ে আমাকে আবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য চেকাপ করার কথা বলেছেন। আমি বলেছি-আমাকে আবার চেকাপ করে টেনাহেঁচড়া করেন না। আমি রাজশাহী থেকে সরাসরি ভারতের চেন্নাই গিয়ে চিকিৎসা করাতে চাই। কারণ সেখানে আমার চিকিৎসা চলছে।

রাজশাহী নগরীর দরগাপাড়া এলাকায় চামেলী খাতুনের বাড়ি। দুই ঘরের জরাজীর্ণ বাড়িতেই কাটছে তার দিন। চামেলীর ভাষ্য অনুযায়ী, মেরুদণ্ডের দুই হাড়ের ফাঁকে থাকা নরম ডিস্কগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তার শরীরের পুরো ডান পাশ অবশ হয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় দ্রুত দেশের বাইরে সার্জারির পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। এতে প্রয়োজন অন্তত ১০ লাখ টাকা। কিন্তু সেই সামর্থ্য নেই চামেলীর পরিবারের।

চামেলী জানান, ২০১১ সালে আবহনী ক্রীড়া চক্রের মাঠে তিনি অনুশীলনে যান। সেখানেই তার পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায়। এতে দৌড়ানো পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় তার। নিজের ইচ্ছায় জাতীয় দল থেকে অবসর নেন। পরে দেখা দেয় মেরুদণ্ডের হাড়ে ব্যথা। এই অসুস্থ অবস্থায় দীর্ঘ আট বছর ধরে খেলার মাঠ থেকে বাইরে চামেলী। জীবিকার তাগিদে চামেলী চাকরি নিয়েছিলেন আনসার ভিডিপি অফিসে। আমরা ছয় বোন ও দুই ভাই। তবে চাকরি করে বাবা-মা ও এক বোনের ভরণপোষণ চালাচ্ছিলেন নিজেই। কিন্তু অসুস্থতাজনিত কারণে অফিস করতে পারছেন না নিয়মিত।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাজশাহী শাখার সভাপতি কল্পনা রায় বলেন, মঙ্গলবার বিকালে তাকে আমরা দেখতে গিয়েছিলাম। তার প্রতি সহানুভূতি জানিয়েছি। তার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডসহ আর্থিক সহায়তাকারী ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় মেয়েটি যেন আবার তার স্বপ্নের আঙিনায় স্বাভাবিকভাবে ফিরে আসে। এটাই প্রত্যাশা করি এবং তার পাশে থাকার প্রত্যায় ব্যক্ত করেছি।

চামেলীকে আর্থিক সহযোগিতা পাঠানোর ঠিকানা

অ্যাকাউন্টের নাম : চামেলী খাতুন, জনতা ব্যাংক, লক্ষীপুর শাখা, রাজশাহী। অ্যাকাউন্ট নম্বর : ০১০০১০২২২৪৫৩৬। মোবাইল ও বিকাশ নম্বর-০১৭১২৪১৫৩৮৮।

** নির্ভরযোগ্য খবর জানতে ও পেতে স্টার মেইলের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন: Star Mail/Facebook


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

রাহুল ও প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সোনিয়া গান্ধীর জরুরি বৈঠক

লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ও জোট (ইউপিএ) মাত্র ৯৩টি আসন পেয়ে রাজনৈতিক যে বিপর্যয়ের মুখোমুখি, তা কাটিয়ে উঠতে রাহুল ও প্রিয়াঙ্কার

চিত্রনায়ক দেবের দাপুটে জয়

ভারতজুড়ে নরেন্দ্র মোদির বিজেপির জয়জয়কার। আর এরমধ্যে বিজেপি প্রার্থীকে পরাজিত করে বিপুল ভোটে জয় ছিনিয়ে নিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী ও অভিনেতা দীপন অধিকারী দেব।

৯ শতাংশ সুদে ঋণ না দিলে সরকারি আমানত পাবে না ব্যাংক

যেসব ব্যাংক গ্রাহকদের ৯ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে না, এমনকি যারা ইতোমধ্যে ৯ শতাংশে ঋণের সুদহার নামিয়ে আনতে ব্যর্থ হয়েছে, সেসব ব্যাংক আমানত হিসেবে সরকারি তহবিলের অর্থ পাবে না।

মন্তব্য লিখুন...

Top