1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
দুর্ঘটনা এড়াতে বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই পাশে দীর্ঘ যানজট, ভোগান্তি চরমে - starmail24
শিরোনাম :
মাদক নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না ‘অল্প স্বল্প গল্প’ নিয়ে ফিরলেন আরজে রিজন মালয়েশিয়ায় এপ্রিলের শেষ সাপ্তাহ থেকে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি কর্মী প্রবেশ করতে পারে ! ইফতার আয়োজনে ‘সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য’ মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগের ৮ বছরের অন্তঃদ্বন্ধের সমাধান গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক কর্মচারীদের অসন্তোষ, নোবেল বিজয়ী ডক্টর মোহাম্মদ ইউনুসের নিরাবতা দেশ গড়ার বাস্তবায়নে জনগণের পাশে থেকে কাজ করুন, প্রশাসন ক্যাডারদের প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের আইনসভা ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন মুখ দেখানোতে আপত্তি, ছবির বদলে বায়োমেট্রিকের নিয়ম দাবি জীবন বীমার সাবেক এমডি জহুরুল হকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা




দুর্ঘটনা এড়াতে বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই পাশে দীর্ঘ যানজট, ভোগান্তি চরমে

স্টার মেইল ডেস্ক:
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০

ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে যান চলাচল বিঘ্ন হচ্ছে। এর ফলে সেতুর দুই পাশে কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। থেমে থেমে মাঝে মাঝে গাড়ি সামনে এগোলেও কিছুক্ষণ পর আবার দাঁড়িয়ে যায়। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির সারি দীর্ঘ হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এসব যানে থাকা লোকজন।

জানা যায়, সোমবার রাতে কুয়াশার তীব্রতা বাড়তে থাকে। কুয়াশার পরিমাণ বেশি হলে দুর্ঘটনা এড়াতে বেশ কয়েকবার টোল আদায় বন্ধ রাখা হলে যানবাহন চলাচল বিঘ্ন হয়। এছাড়া ভোরে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের শল্লা ও জোকারচর এলাকায় দুর্ঘটনার করণে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তবে এসব দুর্ঘটনায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার ওসি কাজী আইয়ুবুর রহমান।

দীর্ঘক্ষণ গাড়ি আটকে থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এসব যানবাহনে থাকা চালক ও যাত্রীরা। বিশেষ করে ভোগান্তিতে পড়েছে সবজিভর্তি ট্রাকগুলো। ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের সেতু পূর্ব পাড় থেকে টাঙ্গাইল বাইপাস ও সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়ক থেকে সিরাজগঞ্জ রোড পর্যন্ত গাড়ির দীর্ঘ সারি রয়েছে।

রংপুর থেকে ঢাকায় আসার জন্য রাত ১০টায় বাসে উঠেছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, সকালের মধ্যে ঢাকায় ফিরবো বলে রাত ১০টায় বাসে উঠেছি। কিন্তু সকাল সাতটা পার হলেও এখনো বাস সেতু পার হয়নি। দীর্ঘ সময় যানজটে বাস আটকে থাকায় ক্লান্ত হয়ে গেছি।

সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে বেশ কয়েকবার টোল আদায় বন্ধ রাখা হয়। এজন্য সেতুর ওপর এবং দুই পাশে যানবাহন আটকা পরে যানজটের সৃষ্টি হয়। আস্তে আস্তে গাড়িগুলো ছেড়ে দিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ।




আরো পড়ুন