1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
শিরোনাম :
প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ইমরান খানের দল পিটিআই মিয়ানমার থেকে সশস্ত্র অবস্থায় কারও বাংলাদেশে ঢোকার সুযোগ নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মালয়েশিয়ায় নির্মাণাধীন ১৩ তলা ভবন থেকে পড়ে এক বাংলাদেশির মৃত্যু বিপিএলে উড়ছে রংপুর রাইডার্স জোট গঠন করে সরকারে আসবে ইমরানের পিটিআই অবৈধ মোবাইল ফোন আগামী জুলাই মাসে বন্ধ হতে পারে জানালেন প্রতিমন্ত্রী জাতীয় পার্টি থেকে জিএম কাদের-চুন্নুকে বহিষ্কার করলেন রওশন এরশাদ সৌদি আরবে এক সপ্তাহে ১৫ হাজারের বেশি অভিবাসী গ্রেপ্তার ৩০ জানুয়ারি সারা দেশে কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি বিএনপির




মুক্তি পাচ্ছে দেশের প্রথম ইংরেজি ভাষায় নির্মিত ছবি ‘দি গ্রেভ’

স্টার মেইল ডেস্ক:
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০

২৫ ডিসেম্বর বড়দিনে চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে মুক্তি পাচ্ছে দেশের প্রথম ইংরেজি ভাষায় নির্মিত ছবি ‘দি গ্রেভ’। বাংলায় ছবিটির নাম রাখা হয়েছে ‘গোর’। সরকারি অনুদানে নির্মিত এই ছবির পরিচালক গাজী রাকায়েত। এতে তিনি অভিনয়ও করেছেন। ছবিটি সিলভার স্ক্রিনে এক যোগে দুটি হলে দুই ভাষাতেই প্রদর্শিত হবে বলে জানান অভিনেতা-পরিচালক।

ছবিটিরনাম বাংলায় ‘গোর’ রাখা হয়েছে কেন জানতে চাওয়া হলে গাজী রাকায়েত বলেন, ‘প্রথমত গোর সর্বজন পরিচিত একটি আঞ্চলিক শব্দ। দ্বিতীয়ত, গল্পটি একজন গোর খোদকের। গত ১৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় প্রায় সাড়ে তিন মিনিট দৈর্ঘ্যের একটি ট্রেলার প্রকাশ করা হয়েছে ছবির। ট্রেলারটি নির্মাতার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়েছে।

এই ছবিতে গোর খোদকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন মঞ্চ ও টেলিভিশনের অভিজ্ঞ অভিনেতা ও নির্মাতা গাজী রাকায়েত নিজেই। সঙ্গে আছেন মৌসুমী হামিদ। ইমপ্রেস টেলিফিল্মের সহ-প্রযোজনায় এতে আরও অভিনয় করেছেন দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, আশিউল ইসলাম, সুষমা সরকার, এ কে আজাদ সেতু, দীপান্বিতা ও ওমর ফারুক প্রমুখ।

ছবিটি প্রসঙ্গে গাজী রাকায়েত বলেন, সব ছবি দুই ভাষায় নির্মাণের দরকার নেই। তবে কিছু চলচ্চিত্র প্রয়োজনীয়। সেই ভাবনা থেকেই ‘গোর’ ইংরেজিতেও নির্মাণ করা হয়েছে। অনেকে হয়তো ভাবতে পারেন এটি ডাবিং চলচ্চিত্র। কিন্তু আমরা দুটি ছবিই আলাদা ভাবে শুট করেছি।’

তিনি জানান, ঢাকায় ছবিটি মুক্তি দেয়ার জন্য বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তবে তারা এখনো কোনো নির্দিষ্ট সময় দেয়নি। তারা যখন সময় দেবে, তখনই ছবিটি ঢাকায় মুক্তি পাবে। নতুবা ভিন্ন কিছু ভাবতে হবে।

অভিনেতা আরও বলেন, লস এ্যাঞ্জেলসেও একটি সিনেমা হল নেয়া হয়েছে। সেখানে বেশির ভাগ অস্কার মনোনয়ন পাওয়া ছবিগুলো প্রদর্শিত হয়ে থাকে। যদি করোনার প্রকোপ কমে যায়, তাহলে জানুয়ারির মাঝামাঝি সেখানে ছবিটি মুক্তি পাবে।




আরো পড়ুন