1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
ঢাবিতে গভীর রাতে ডেকে নিয়ে রোকেয়া হলের এজিএসকে পেটালো ছাত্রলীগের দুই নেত্রী - starmail24
শিরোনাম :
মাদক নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না ‘অল্প স্বল্প গল্প’ নিয়ে ফিরলেন আরজে রিজন মালয়েশিয়ায় এপ্রিলের শেষ সাপ্তাহ থেকে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি কর্মী প্রবেশ করতে পারে ! ইফতার আয়োজনে ‘সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য’ মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগের ৮ বছরের অন্তঃদ্বন্ধের সমাধান গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক কর্মচারীদের অসন্তোষ, নোবেল বিজয়ী ডক্টর মোহাম্মদ ইউনুসের নিরাবতা দেশ গড়ার বাস্তবায়নে জনগণের পাশে থেকে কাজ করুন, প্রশাসন ক্যাডারদের প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের আইনসভা ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন মুখ দেখানোতে আপত্তি, ছবির বদলে বায়োমেট্রিকের নিয়ম দাবি জীবন বীমার সাবেক এমডি জহুরুল হকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা




ঢাবিতে গভীর রাতে ডেকে নিয়ে রোকেয়া হলের এজিএসকে পেটালো ছাত্রলীগের দুই নেত্রী

স্টার মেইল ডেস্ক:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০
ফাল্গুনী দাস তন্বী

গভীর রাতে ডেকে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হল ছাত্র সংসদের সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) ও হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফাল্গুনী দাস তন্বীকে বেধড়ক পিটিয়েছে একই সংগঠনের দুই নেত্রী। সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাবি বঙ্গবন্ধু টাওয়ারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনজির হোসেন নিশি ও শামসুন নাহার হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জেসমিন শান্তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ ওঠেছে।

তন্বী জানান, নিশি এবং শান্তা সোমবার রাত ১২টার দিকে তাকে ফোন দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদে ডেকে নেয়। তিনি সেখানে যাওয়ার পর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকে। একপর্যায়ে তারা মারতে উদ্যত হলে সেখান থেকে দৌড়ে পালান তিনি। তারা ধাওয়া করে পিছু নেয়। পরে বঙ্গবন্ধু টাওয়ারের সামনে তাকে ধরে ফেলে।

এ সময় ধাওয়াকারীরা তাকে বেধড়ক মারতে থাকে। তাদের সঙ্গে থাকা দুই যুবক তাকে ঘিরে ধরে।

ছাত্রলীগ নেত্রী নিশি ও শান্তা

তন্বীর অভিযোগ, মারধরের একপর্যায়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে শান্তা তার পায়ে জোরে চাপ দিয়ে ধরে রাখে আর নিশি এক পা দিয়ে চাপা দিয়ে এলোপাতাড়ি লাথি মারতে থাকে। তারা গলায় পাড়া দেয়। একপর্যায়ে গলা দিয়ে রক্ত বের হয়।
ছাত্রলীগ নেত্রী নিশি ও শান্তা

ফাল্গুনী দাস তন্বীর ভাষ্য, এই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম ও দায়িত্বরত পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। পরে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন তিনি। বর্তমানে তিনি শক্ত খাবার খেতে পারছেন না। রাস্তায় পড়ে যাওয়ায় হাত, পা ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন তিনি।

তন্বীর অভিযোগ, দুই ছাত্রলীগ নেত্রী তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধর করে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন নেতাদের জানিয়েছেন বলে জানান তন্বী। নেতারা ব্যবস্থা না নিলে আইনি ব্যবস্থা নেবেন তিনি।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনজির হোসেন নিশি এবং শামসুন নাহার হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জেসমিন শান্তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।




আরো পড়ুন