1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
আবারো নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে নেমে পড়লো উত্তর কোরিয়া - starmail24
শিরোনাম :
মাদক নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না ‘অল্প স্বল্প গল্প’ নিয়ে ফিরলেন আরজে রিজন মালয়েশিয়ায় এপ্রিলের শেষ সাপ্তাহ থেকে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি কর্মী প্রবেশ করতে পারে ! ইফতার আয়োজনে ‘সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য’ মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগের ৮ বছরের অন্তঃদ্বন্ধের সমাধান গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক কর্মচারীদের অসন্তোষ, নোবেল বিজয়ী ডক্টর মোহাম্মদ ইউনুসের নিরাবতা দেশ গড়ার বাস্তবায়নে জনগণের পাশে থেকে কাজ করুন, প্রশাসন ক্যাডারদের প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের আইনসভা ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন মুখ দেখানোতে আপত্তি, ছবির বদলে বায়োমেট্রিকের নিয়ম দাবি জীবন বীমার সাবেক এমডি জহুরুল হকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা




আবারো নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে নেমে পড়লো উত্তর কোরিয়া

স্টার মেইল ডেস্ক:
  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২১

আবারো নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে নেমে পড়লো কিম জং-আনের উত্তর কোরিয়া। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে নতুন ক্ষেণপাস্ত্রের প্রদর্শনী করলো তারা। এটি একটি সাবমেরিন লঞ্চড ব্যালিস্টিক মিসাইল (এসএলবিএম)।

রাজধানী পিয়ংইয়ং’র সান স্কোয়ারে এই প্রদর্শনীতে দেখা গিয়েছে কিমকেও। চামড়ার কোট এবং টুপি পরে জনতার উদ্দেশে হাত নাড়তে দেখা গিয়েছে তাকে। শুধু ক্ষেপণাস্ত্রই নয়, আরো অন্য সামরিক অস্ত্রের প্রদর্শনও হয়েছে। তবে নতুন ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে বেশ উত্তেজনা ছিলো।

উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ-র প্রকাশিত রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্রটি বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর আগে বেশ কয়েকটি এসএলবিএম’র পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া। সমুদ্রে নিজেদের শক্তি বাড়াতে এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষণ এবং উন্নয়নের দিকে জোর দিচ্ছেন কিম।

বছর খানেক আগেও একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে আন্তর্জাতিক মহলে একটা উত্তেজনার সৃষ্টি করেছিলেন কিম। বিশেষ করে আমেরিকার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার টানাপড়েনে গোটা বিশ্বে একটা আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছিল।

উত্তর কোরিয়ার এ ধরনের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলো বিশ্বের অন্য দেশগুলো। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নানা রকম নিষেধাজ্ঞাও জারি করেছিলো যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও পরে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কের বরফ কিছুটা গলেছিলো।

তারপরে বেশ কিছু সময় কেটে গিয়েছে। ফের নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে নামায় আন্তর্জাতিক মহলে একটা উত্তেজনার আবহ তৈরি হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।




আরো পড়ুন