1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
বৈরুত দূতাবাসে জাতির জনকের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা - starmail24
শিরোনাম :
মাদক নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না ‘অল্প স্বল্প গল্প’ নিয়ে ফিরলেন আরজে রিজন মালয়েশিয়ায় এপ্রিলের শেষ সাপ্তাহ থেকে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি কর্মী প্রবেশ করতে পারে ! ইফতার আয়োজনে ‘সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য’ মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগের ৮ বছরের অন্তঃদ্বন্ধের সমাধান গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক কর্মচারীদের অসন্তোষ, নোবেল বিজয়ী ডক্টর মোহাম্মদ ইউনুসের নিরাবতা দেশ গড়ার বাস্তবায়নে জনগণের পাশে থেকে কাজ করুন, প্রশাসন ক্যাডারদের প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের আইনসভা ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন মুখ দেখানোতে আপত্তি, ছবির বদলে বায়োমেট্রিকের নিয়ম দাবি জীবন বীমার সাবেক এমডি জহুরুল হকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা




বৈরুত দূতাবাসে জাতির জনকের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা

জসিম উদ্দীন সরকার, লেবানন:
  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৭ মার্চ, ২০২১

বাংলাদেশ দূতাবাস লেবাননের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। বুধবার (১৭মার্চ) স্থানীয় সময় সকাল ১০ঘটিকায় বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাসের হল রুমে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা এবং কেক কাটার মধ্য দিয়ে আলোচনা সভার শুরু হয়। দূবাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) আব্দুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোঃ জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান (পিএসসি)।

সভায় বাংলাদেশ থেকে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শুনান দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) আব্দুল্লাহ আল মামুন, তৃতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল শাফি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাইদুর রহমান ও আরমান প্রধান।

এছাড়া সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন দূতাবাস কর্মকর্তা খালেদ মাহমুদ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জীবনীর উপর আলোকপাত করেন কমিউনিটি নেতা জামাল হোসেন, আশফাক তালুকদার, আবুল বাশার প্রধান সহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ লেবানন শাখার নেতৃবৃন্দ। সব শেষে রাষ্ট্রদূতের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘটে।

রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধ তার নিজের গুণাবলী দিয়ে একজন মহান নেতায় পরিনত হয়েছিলেন। তিনি শুধুমাত্র দেশের জন্য জীবনের অনেকটা সময় কারাবরণ করেছেন। তিনি চাইলে আরাম আয়েশের জীবন যাপন করতে পারতেন, কিন্তু বাংলার মানুষের জন্য তিনি জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ৭২ থেকে ৭৫পর্যন্ত এত কম সময়েও বঙ্গবন্ধু তার সঠিক ও বলিষ্ট্য নেতৃত্বে দেশকে গঠন করছিলেন। যুদ্ধ পরবর্তী সময় তিনি সঠিক হাতে দেশের হাল ধরেছিলেন বলেই আজো আমরা বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে রয়েছি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু গরিব ও মেহনতী মানুষের কথা বলতেন, এই জন্য গ্রাম বাংলার মানুষের কাছে তিনি অনেক বেশী জনপ্রিয়। দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্থ করতেই তাকে ঘাতকরা স্বপরিবারে হত্যা করে।

প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রদূত বলেন, আসুন আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ গড়ার কাজে নিয়োজিত হবার শপথ গ্রহণ করি।

এসময় বাংলাদেশ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ, লেবানন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।




আরো পড়ুন