1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
সম্প্রীতি রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির - starmail24
শিরোনাম :
মাদক নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না ‘অল্প স্বল্প গল্প’ নিয়ে ফিরলেন আরজে রিজন মালয়েশিয়ায় এপ্রিলের শেষ সাপ্তাহ থেকে প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি কর্মী প্রবেশ করতে পারে ! ইফতার আয়োজনে ‘সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য’ মালয়েশিয়া আওয়ামীলীগের ৮ বছরের অন্তঃদ্বন্ধের সমাধান গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক কর্মচারীদের অসন্তোষ, নোবেল বিজয়ী ডক্টর মোহাম্মদ ইউনুসের নিরাবতা দেশ গড়ার বাস্তবায়নে জনগণের পাশে থেকে কাজ করুন, প্রশাসন ক্যাডারদের প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের আইনসভা ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন মুখ দেখানোতে আপত্তি, ছবির বদলে বায়োমেট্রিকের নিয়ম দাবি জীবন বীমার সাবেক এমডি জহুরুল হকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা




সম্প্রীতি রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির

স্টার মেইল, ঢাকা
  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১

মসজিদ, মন্দির, পূজামণ্ডপ, ঈদগাহসহ সব ধর্মীয় উপাসনালয়কে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা বাধ্যতামূলক করাসহ সাত দফা সুপারিশ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টি। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এসব সুপারিশ জানায় দলটি।

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন বলেন, সাম্প্রদায়িকতা, উগ্রবাদ ও বর্ণবাদ মানব সমাজের সবচেয়ে বড় শত্রু। এ মানবতার শত্রুদের প্রতিহত করতে হবে। এজন্য দেশ, অঞ্চল ও বিশ্বের অসাম্প্রদায়িক মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে মানুষ ও মানবতার দুষমনদের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে যারা মন্দিরে কোরআন অবমাননা করেছেন, হিন্দুদের পূজামণ্ডপে আক্রমণ করেছেন, মূর্তি ভেঙেছেন, এদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। সব সম্প্রদায়ের ধর্ম পালনের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমানের সঙ্গে কুমিল্লায় মন্দির সংলগ্ন ওয়ার্ডের এক বিএনপি কাউন্সিলরের হোয়াটসঅ্যাপে কথপোকথনের অংশবিশেষ ফাঁস হয়েছে জানিয়ে মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন বলেন, এ ফোনালাপ যদি সত্য প্রমাণিত হয়, তাহলে দেশের চলমান সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা তৈরি করার পেছনে বিএনপির সরাসরি সম্পৃক্ততা প্রমাণিত হবে।

৭ দফা সুপারিশ হচ্ছে—

১.মসজিদ, মন্দির, পূজামণ্ডপ, ঈদগাহসহ সব ধর্মীয় উপাসনালয়কে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা বাধ্যতামূলক করতে হবে।

২.অবিলম্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী ও এর সঙ্গে জড়িত বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মী এবং তাদের দোসরদের গ্রেফতারের আওতায় আনতে হবে।

৩.কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে যেকোনো পক্ষের, যেকোনো প্রকার প্রতিক্রিয়া বন্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিতে হবে।

৪. ফেসবুক এবং অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিএনপি-জামায়াত চক্র যে গুজব ছড়াচ্ছে, তাদের প্রত্যেককে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় এনে যথাযোগ্য শাস্তি প্রদান করতে হবে।

৫. সংবিধান অনুযায়ী কোনো সম্প্রদায় অপর সম্প্রদায়ের ধর্ম এবং ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত হানলে দল-মত নির্বিশেষে তাকে আইনের আওতায় আনা লাগবে।

৬. দেশের জনগণকে সচেতন করে তুলতে হবে। তারা যেন দেশের বাইরে থেকে করা ষড়যন্ত্রের ফাঁদে পা না দেয়।

৭. মসজিদে মন্দিরে এবং সব ধর্মীয় উপাসনালয়ে ধর্মীয় গুরুদের মাধ্যমে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখার গুরুত্ব, ফজিলত এবং অপর ধর্মের অনুসারীদের প্রতি দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা শাহাদাত হোসাইন, যুগ্ম মহাসচিব কাজী মাওলানা শাহ মো. ওমর ফারুক, কাজী মাওলানা আব্দুল কাইয়ুমসহ প্রমুখ।




আরো পড়ুন