1. admin@starmail24.com : admin :
  2. editor@starmail24.com : editor@starmail24.com :
শিরোনাম :
প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ইমরান খানের দল পিটিআই মিয়ানমার থেকে সশস্ত্র অবস্থায় কারও বাংলাদেশে ঢোকার সুযোগ নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মালয়েশিয়ায় নির্মাণাধীন ১৩ তলা ভবন থেকে পড়ে এক বাংলাদেশির মৃত্যু বিপিএলে উড়ছে রংপুর রাইডার্স জোট গঠন করে সরকারে আসবে ইমরানের পিটিআই অবৈধ মোবাইল ফোন আগামী জুলাই মাসে বন্ধ হতে পারে জানালেন প্রতিমন্ত্রী জাতীয় পার্টি থেকে জিএম কাদের-চুন্নুকে বহিষ্কার করলেন রওশন এরশাদ সৌদি আরবে এক সপ্তাহে ১৫ হাজারের বেশি অভিবাসী গ্রেপ্তার ৩০ জানুয়ারি সারা দেশে কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি বিএনপির




ইয়েমেনের উপকূলে ইসরায়েলি ট্যাংকারে হামলা

স্টার মেইল ডেস্ক:
  • সর্বশেষ আপডেট : সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২৩

এবার ইয়েমেনের উপকূলে ইসরায়েলি ট্যাংকারে হামলা হয়েছে। রোববার (২৬ নভেম্বর) হামলা চালানোর পর ট্যাংকারটিকে জব্দ করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ এ হামলার জন্য ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতিদের দায়ী করছে। এবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটিশ সেনাবাহিনী এবং প্রাইভেট গোয়েন্দা সংস্থা আম্বেরি জানিয়েছে, আক্রমণকারীরা এ লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী সেন্ট্রাল পার্ক নামের ট্যাংকারটিকে জব্দ করেছে। এটি ইসায়েলের মালিকানাধীন জোডিয়াক ম্যারিটাইম নামের একটি কোম্পানি পরিচালনা করে আসছিল, যা লন্ডনভিত্তিক একটি আন্তর্জাতিক নৌযান ব্যবস্থাপনা কোম্পানি।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) সকালে জোডিয়াক ম্যারিটাইম জানিয়েছে, ট্যাংকারটি ফসফরিক এসিড বহন করছিল। এ ছাড়া ট্যাংকারটিতে ২২ জন ক্রু ছিলেন। তারা বুলগেরিয়া, জর্জিয়া, ভারত, ফিলিপাইন, রাশিয়া, তুরস্ক এবং ভিয়েতনামের নাগরিক। তারা সবাই নিরাপদ রয়েছেন।

কোম্পানি জানিয়েছে, আমরা ফোর্সকে দ্রুত সাড়া দিয়ে সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানায়। তারা আমদের সম্পদ রক্ষা করেছে এবং আন্তর্জাতিক সমুদ্রসীমা আইন সমুন্নত রেখেছে। কোম্পানি কীভাবে আক্রমণকারীরা জাহাজটি ছেড়ে গেছে বা কারা ছিল তার বিষয়ে কিছু জানায়নি।

পেন্টাগন জানিয়েছে, আক্রমণের শিকার জাহাজটি এখন নিরাপদ রয়েছে। তবে তারা আক্রমণকারীদের ব্যাপারে বিস্তারিত জানাইনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন কর্মকর্তাদের একটি সূত্র জানিয়েছে, সেন্ট্রাল পার্ক আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস ম্যাসন সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। ওই কর্মকর্তারা যদিও বলেছেন যে তারা মন্তব্য করার মতো কেউ না।

এর আগে গত সপ্তাহে লোহিত সাগরে ইসরায়েলের জাহাজ জব্দ করার দাবি করে ইয়েমেন। দেশটির বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতির মুখপাত্র ইয়াহইয়া সারি এ দাবি করেন।

হুতির মুখপাত্র ইয়াহইয়া সারি বলেন, ইসরায়েলি জাহাজটিকে লোহিত সাগর থেকে জব্দ করা হয়েছে। এরপর ক্রুদেরসহ জাহাজটিকে উপকূলে সরিয়ে আনা হয়েছে। আমরা ক্রুদের সঙ্গে ইসলামী নিয়মনীতি মেনে আচরণ করছি।

এর আগে ইসরায়েলের জাহাজ দেখলেই হামলার হুমকি দিয়েছিল ইয়েমেনের এ বিদ্রোহী গোষ্ঠী। তারা জানিয়েছিল, লোহিত সাগরে ইসরায়েলি জাহাজ দেখলেই হামলা করা হবে।

হুতিদের নেতা আবদুল মালেক আল হুতি বলেন, তারা লোহিত সাগরে ইসরায়েলি বাণিজ্যিক জাহাজের ওপর নজরদারি করছে। ইসরায়েলের পতাকা বহন করে না এমন জাহাজের ওপর নজর রয়েছে বলে জানিয়েছে দলটি।

আল মাশিরাহ টিভিকে তিনি বলেন, আমরা লোহিত সাগরে নজরদারি করছি। এ নৌপথে ইসরায়েলের জাহাজের ওপর আমাদের তীক্ষ্ণ নজর ও অনুসন্ধান চলছে।

তিনি বলেন, শত্রুরা এ অঞ্চলে বিশেষ করে বাব আল মানদেবে ছদ্মবেশে চলাচল করছে। তারা নিজেদের পতাকা উড়িয়ে চলার সাহস করছে না। এমনকি এ অঞ্চলে চিহ্নিতকরণ সরঞ্জাম বন্ধ করে তারা চলাচল করছে।

হুতির এ নেতা বলেন, আমরা খোঁজ করছি এবং তাদের জাহাজের বিষয়টি যাচাই করছি। তাদের জাহাজ পেলে আমরা হামলা চালাতে পিছপা হব না।




আরো পড়ুন